নতুন ট্রেকিং বুট কিনবে ভাবছো? এই ৬টা বিষয় অবশ্যই দেখে নাও! 6 things to check before buying trekking shoe!

Abinash Jana
3 min readNov 25, 2019

কোনটা ভালো ট্রেকিং বুট? বাছবো কিভাবে?

পা ভালো তো সব ভালো, হ্যাঁ খুব বড় ট্রেকিং হোক বা ছোট খাটো হাইকিং হাঁটার সময় পা যদি আরামে খাকে তাহলে তো আর কথাই নেই। হাঁটতে হাঁটতে সারা পৃথিবী ট্রেকিং করে নেওয়া যাবে। কিন্তু পা যদি বিগড়ে যায় তাহলে সব গেল।

তাই ট্রেকিং -এর জিনিস পত্র যোগাড় করার সময় কিন্তু ট্রেকিং বুট কে সবথেকে বেশি গুরুত্ব দিতে হয়। যদি না গুরুত্ব দাও তাহলে এই সুন্দর পাথর, জঙ্গল, ঝরনা, বরফই কিন্তু ভয়ংকর হয়ে উঠবে।

যখনই ট্রেকিং বা হাইকিং -এর প্ল্যান করো না কেন, এক মাস আগে থেকে একজোড়া ভালো ট্রেকিং বুট যোগাড় করো।

আমি সোজা-সাপটা বলে রাখছি, ভালো ট্রেকিং বুট কিন্তু খুব সস্তা হয় না। এমনকি, এটাও নয় যে একটা সব জায়গাতেই একই জুতো ব্যাবহার করা যাবে। তাই নেওয়ার সময় খুব বিবেচনা করে তবেই ট্রেকিং বুট কিনবে।

জুতো কেনার সময় কোন কোন ব্যাপার মাথায় রাখবে -

১. রুট অনুযায়ী ট্রেকিং বুট

২. লো-কাট, মিড-কাট, হাই-কাট ট্রেকিং বুট

৩. ট্রেকিং বুটের মেটেরিয়াল

৫. বুটের সাইজ

৬. বুটের ফিতে ও জিভ

৭. ট্রেকিং বুটের সোল

১। রুট অনুযায়ী ট্রেকিং বুট

প্রথমেই দেখে নেব কোন ধরনের রাস্তায় আমরা এই ট্রেকিং বুট পরে হাঁটবো। আমরা সাধারনত ট্রেকিং করি পাহাড়, পর্বতে, জঙ্গলে। সমুদ্র তট ধরে ট্রেকিং বা কোস্টাল ট্রেক খুব কম সংখ্যক মানুষই করে থাকি। তাই বেশীর ভাগ ব্যবহার হবে এমন রাস্তা বেছে নিয়েই ত্রেকিং বুট কিনব।

রাস্তার ধরন অনুযায়ী মোটামুটি চার রকমের ট্রেকিং বুট পাওয়া যায় — ১. সহজ সাধারন পাহাড়ি মেঠো পথের জন্য ট্রেকিং বুট। ২. মোটামুটি উবড়-খাবড়া পাথুরে রাস্তার জন্য মিড-কাট। ৩. খুব উঁচু নিচু, পাথুরে, পার্বত্য অঞ্চলের জন্য হাই-কাট এবং ৪. পর্বতারোহণের জুতো।

১.১ সহজ সাধারন পাহাড়ি মেঠো পথের জন্য ট্রেকিং বুট।

সারাদিনে একটা পাহাড়ি মেঠো রাস্তায় ঘুরে বেড়ানো ও অন্যান্য অ্যাক্টিভিটির জন্য এই ট্রেকিং বুট ব্যাবহার করা যেতে পারে। এগুলো হালকা, নমনীয় এবং খুবই আরামদায়ক ধরনের হয়। স্পোর্টস-সু এর মত ব্যাবহার করাও হয়ে থাকে। এই ধরনের ট্রেকিং বুটে অ্যাঙ্কেল-সাপোর্ট থাকে না বললেই চলে। টিলা বিশিষ্ট পাহাড়ি রাস্তায় দৌড় ঝাপ করার জন্যও ব্যবহার করা হয়ে থাকে। সাধারনত লো-কাট হাইকিং বুটগুলি এই শ্রেনিতে পড়ে।

১.২ উবড়ো-খাবড়া পাহাড়ি জঙ্গল রাস্তার জন্য ট্রেকিং বুট

পাহাড়, জঙ্গল, ঝরনা পেরিয়ে, উঁচু নিচু পাথর ডিঙিয়ে, কোনও এক অজানা রাস্তায় হারিয়ে যেতে ইচ্ছে করলে, এই বুট যথেষ্ট। পাথুরে রাস্তায় হাঁটার জন্য মোটামুটি ধরনের অ্যাঙ্কেল-সাপোর্ট থাকে। লো-কাট এবং হাই-কাট ট্রেকিং বুটের মাঝামাঝি অর্থাৎ মিড-কাট শ্রেনিতে বুটগুলো পড়ে। এই ট্রেকিং বুট লো-কাট বুটের থেকে তুলনামুলকভাবে ভারি ও কম আরামদায়ক হয়ে থাকে। যাতে সহজে জল না প্রবেশ করতে পারে তার জন্য ভালো চামড়া দিয়ে অথবা সিন্‌থেটিক পদার্থ দিয়ে বানানো হয়ে থাকে।

১.৩ খুব উঁচু নিচু, পাথুরে, পার্বত্য অঞ্চলের জন্য ট্রেকিং বুট

এই শ্রেনির বুট বানানো হয় মুলত পার্বত্য এলাকায় ট্রেকিং-এর জন্যই। যদি মনে হয় এটা পরে ডেসার্ট ট্রেক করবে, মরুভুমির বালির উপর দিয়ে যাবে তাহলে সেটা হবে অত্যন্ত বোকামো। খুব ভালো অ্যাঙ্কেল-সাপোর্ট থাকে যেটা পা মচকে যাওয়ার হাত থেকে অনেকটাই বাঁচিয়ে দেয়। বরফাবৃত এলাকাতেও মোটামুটিভাবে ব্যাবহার করা যায়। ওয়াটারপ্রুফও হয় অথচ হাওয়া পাশ করার ব্যাবস্থাও থাকে। সাধারন বুটের থেকে অপেক্ষাকৃত ভারি হয়। যেহেতু এর অ্যাঙ্কেল-সাপোর্ট অনেক বেশি, এটা পরে সমতলে দৌড়োদৌড়ি দূরে থাক, হাঁটাচলা করতে খানিক অসুবিধা হয়।

১.৪ পর্বতারোহণের জুতো

এই জুতো পর্বতারোহিরাই ব্যাবহার করে থাকে। সাধারন ট্রেকিং করতে হলে এগুলোর প্রয়োজন পড়ে না বললেই চলে। খুব ভালো অ্যাঙ্কেল-সাপোর্ট সহ উন্নতমানের ফাইবারের খোলস ব্যাবহার করা হয়ে থাকে। এবং এই খোলসের ভেতরেও ডবল্‌-লেয়ার করা হাই কোয়ালিটির ফেব্রিক জুতো ভরা থাকে। প্রচন্ড তুষারাবৃত পার্বতারোহনের সময় এগুলোর ব্যাবহার হয়ে থাকে।

আরও পড়তে ক্লিক করো এখানে

https://cutt.ly/WeVNX3F

--

--